স্প্যাম আইন মেনে আদর্শ ইমেল টেমপ্লেট তৈরি করার পদ্ধতি – প্রফেশনাল ইমেল মার্কেটিং – গাইডলাইন ৬

অনলাইনে মার্কেটিং এ নিরাপত্তা সবথেকে বড় ইস্যু। নানান ধরনের ভাইরাস ও সাইবার আক্রমনের শিকার হয়ে অনেক কোম্পানীই অস্তিত্ত্ব হারিয়েছে। আমাদের সবারই কম বেশী অভিজ্ঞতা রয়েছে অনলাইন প্রযুক্তির এই কালো ছায়া সম্পর্কে। কোন না কোন ভাবে স্পামিং এর শিকার আমরা সবাই হয়ে থাকি। সব থেকে অবাক করা খবর হলো – যুক্তরাষ্ট, চীন, ভারত এর মতো দেশগুলো এই স্পামিং এর শীর্ষে রয়েছে। তাই প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা স্পামিং প্রতিরোধ করতে অনেক বেশী সর্তক।

সব থেকে স্পামিং হয়ে থাকে ইমেইলের মাধ্যমে তাই আমরা যারা ইমেল মার্কেটিং এর কাজ করছি আমাদের জন্য আরো বড় একটি চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে। স্পাম মুক্ত একটি ইমেল ব্যবহারকারীর কাছে পৌছে দিতে আমাদের তাই বাড়াতে হচ্ছে কৌশল ও মেনে চলতে হচ্ছে অনেক নিয়ম নীতি। আজকের এই আরটিকোলে স্প্যাম ফ্রি টেমপ্লেট তৈরি করার কৌশল নিয়ে আলোচনা করব। কেননা, স্পাম প্রতিরোধ ইমেল টেমপ্লেট কিভাবে তৈরি করব এ নিয়ে প্রতিদিন প্রচুর প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়। আজকের এই আরটিকোলটি ভালোভাবে দেখলে এই সমস্যা থেকে আশা করছি মুক্তি পাবেন। অনেকেই আমাকে বলে থাকেন, ইমেল সেন্ড করার পর অপেন রেট ভালো আসে না কেন? এটা কি আমাদের সারভারে কোন সমস্যা? কখনোই নয়। প্রতিনিয়ত আমরা সারভার চেক করে থাকি। ইমেল সেন্ড করার পর অপেন রেট তখনই আসবে যখন আপনার ইমেলটি অপেন করা হবে।

ইউজাররা ইমেল অপেন করবে তখনই যখন সে ইমেইলের সাবজেক্টটি পড়ে আরো জানতে আগ্রহী হবে। তাছাড়া ইমেল সেসব ইউজারদের কাছে পাঠাতে পারেন, আপনার প্রডাক্টের প্রতি কেবল যাদের আগ্রহ রয়েছে। তাছাড়া ইনবক্সে ইমেল পাঠাতে হবে এতে ইমেল অপেন হওয়ার সম্ভাবনা বাড়বে। তাছাড়া ভেলিড ইমেল এড্রেসে বিজ্ঞাপন করা বাঞ্চনীয়। এ সংক্রান্ত বেশ কিছু আলোচনা পূর্বের আরটিকোলগুলো সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন। যাই হোক, আজকের আরটিকোলটির মূল আলোচ্য অংশ তুলে ধরছি। ইমেল টেমপ্লেটের নিচে আনসাবসক্রাইবার লিংক যুক্ত করতে হবে। টেমপ্লেটটিতে আনসাবসক্রাইব লিংক যুক্ত না করায় ইমেলটি স্পাম হয়ে যায়। ক্যাম্পইনটির কোথাও স্পাম ওয়ার্ড থাকতে পারবে না। এমনকি কোন স্পাম লিংক কিংবা ইমেল যুক্ত করা যাবে না। সারভারের আইপি ব্ল্যাক লিষ্টে থাকতে পারবে না। এস.এম.টি.পি ব্যবহার করলে তার সেটআপ যথাযথভাবে করতে হবে। একটি আদর্শ ইমেলকে আমরা তিনটি ধাপে ভাগ করতে পারি।

প্রথমে এমন একটি সাবজেক্ট সিলেক্ট করতে হবে যেন ভিজিটর ক্লিক করতে আগ্রহী হয়। তবে সাবজেক্টে এমন কোন শব্দ ব্যবহার করা যাবে না যাতে ইমেলটি স্প্যাম হয়ে যায়। তারপর বডি তে তথ্যগুলো এমনভাবে সাজাতে হবে যেন ফন্ট সাইজ ও কালার ঠিক থাকে। তাছাড়া দ্রুত লোড হচ্ছে কি না সেটিও দেখে নিতে পারেন। ইমেজ ডাইরেক্ট সারভারের আপলোড না করে লেন্ডিং পেইজ থেকে এড করা উচিত। সব শেষে ফোটার অংশে আনসাবক্রাইব লিংক যুক্ত করতে হবে এবং কোম্পানীর একটি স্পষ্ট ঠিকানা রাখতে হবে। তবেই আপনার ক্যাম্পেইন সফল হবে। http://%%unsubscribelink%% কেবল আনসাবক্রাইব লিংকটি এড করলেই যে ইমেল স্প্যাম মুক্ত তা কিন্তু ঠিক নয়। উপরের তিনটি প্রধান অংশ সমান গুরূত্বপূর্ণ। ধন্যবাদ